উৎসবমূখর পরিবেশে হাবিপ্রবি’র ১৮তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস পালিত।
Posted: 11 September, 2017

উৎসবমূখর পরিবেশে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৮তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উদযাপিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সন্মুখে বেলুন ও শান্তিরদূত পায়রা উড়িয়ে কর্মসূচির শুভ উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম। এ উপলক্ষে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। র‌্যালিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, শিক্ষার্থী ও কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালি শেষে প্রশাসনিক ভবনের সন্মুখে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম, ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন ও সাবেক ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর মো. রুহুল আমিন, পোস্টগ্র্যাজুয়েট স্টাডিজ অনুষদের ডীন প্রফেসর মো. মিজানুর রহমান, ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্স অনুষদের ডীন প্রফেসর ডা. মো. ফজলুল হক, সোসাল সায়েন্স অ্যান্ড হিউমিনিটিস অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. ফাহিমা খানম, বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. মো. সফিউল আলম, রসায়ন বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. বলরাম রায়, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা শাখার পরিচালক প্রফেসর ডা. এস এম হারুন-উর-রশীদ, হিসাব শাখার পরিচালক প্রফেসর ড. মো. শাহাদৎ হোসেন খান প্রমূখ।

আলোচনা সভা শেষে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ হাবিপ্রবি শাখার উদ্যোগে ১৮তম বিশ্ববিদ্যালয় দিবস উপলক্ষে কেক কাটা হয়। আলোচনা সভায় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মু. আবুল কাসেম বলেন, সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টায় প্রতিষ্ঠার মূল লক্ষ্যকে সমুন্নত রেখে হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষা ও গবেষণা কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের উচ্চশিক্ষা বিস্তারে কাজ করে যাচ্ছে। বর্তমানে এ বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০ হাজারেরও অধিক শিক্ষার্থী এবং বিভিন্ন দেশের দুই শতকের অধিক বিদেশী শিক্ষার্থী উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করছে। এ সাফল্যের ধারা অব্যাহত রেখে বিশ্ববিদ্যালয়টিকে সেন্টার অব এক্সিলেন্স হিসেবে গড়ে তুলতে এবং দেশের উচ্চশিক্ষা বিস্তারে আরও ভূমিকা রাখতে তিনি সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।

News and Events